পাঁচটি রানী কাহিনী | Panchti Rani Kahini

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
২২ পাচটি রানী কাহিনী -তাই আপনাকে বললাম। পুত্রহীনতার কষ্ট আপনাকে এই যন্ত্রণা দিচ্ছে। মানুষের জীবনে -যত দুঃখ এবং TEN তার উৎপত্তির উৎস প্রবৃত্তির গভীরে। অক্ষমতা ব্যর্থতার সঙ্গে yay ইচ্ছার বিরোধ যন্ত্রণা দুঃসহ হয়ে ওঠে। প্রতিরোধের প্রাচীর যখন ভেঙে পাড় তখন ব্যক্তিত্বের অন্তরালে মানর এই ক্ষয় চলে। মানুষ পশুর মতো Garde জীব নয়। সম্ভান সম্ভতির মধ্যে সে তার" বংশধারা রক্ষা করতে চায়। তাই প্রত্যেক নারী ও পুরুষ AGIA OI সন্তান তার প্রতীক। মৃত্যুর পরেও যে তাদের এশ্বর্য কৃষ্টি বহন করে নিয়ে যাবে আর এক কালে। এই ভাবে ব্যক্তি তার সম্ভানের ভেতর দিয়ে নতুন বরে Ci উঠে; সমাজ, ধর্ম, পরিবারকে নতুন প্রাণ দেয়। এইখানেই তার জীবনের সার্থক জয়যাত্রা। সেই যাত্রাপথের যখন fay ঘটে তখন মানুষের মনের গভীরে শ্মশানের চিতা জ্বলে। পুত্রইনতার দুঃখ আপনার এই একাকীত্ববোধ ও পরিজনহীনতাবোধের জন্যে দায়ী। ভার্যা, রাজ্য, al, ধন, সম্পদ কোন fay অভাব আপনার নেই তবু মন আশ্রয় খুঁজে পাচ্ছে না। তাই এই বিলাপ।দশরথ DA করে রইল। একটা গভীর দীর্ঘশ্বাস পড়ল তার। fasts বিস্ময়ে ধীরে ধীরে বলল : মহামতি wife এসব কথা এত গভার কবে কোনদিন fee চিন্তে ভাবিনি। আজ মনে হচ্ছে, ক্ষুধার্ত প্রবৃত্তি তার শিকাবকে গ্রাসে৫ সম্মুখে রেখে বসে আহে। সংকোচে আহার করতে পারছে না। যদিও হিংস্র থাবা মেলে প্রবৃত্তি গ্রাস করতে চাইছে তাকে। Fra একটা ER pH, সৌজন্য বোধের বাধা কাটিয়ে উঠতে না পারায় Ga যন্ত্রণা তার ayes ছড়িয়ে পড়ছে।অশ্বপতি কোন কিছু না ভেবেই বলল: মহারাজ, ক্ষুণার আকর্ষণ স্বাভাবিক ও প্রকৃতি অনুমোদিত। সম্ভান EM wea জীবনে সর্নাপেক্ষা আত্রেগবান বৃত্তি। জীবনের নতুন অঙ্গীকার নিয়ে চলার পথে একধাপ এগিয়ে যায় মানুষ, মানুষের সমাজ। বেঁচে থাকা ও বেড়ে ওঠার তাগিদে আপন প্রাণশক্তিতে wai হয়ে সে সৃষ্টি করে, নতুন হয়ে গড়ে ওঠে আপন ARIAS মধ্যে। সৃষ্টির এই আবেগ শুধু HATS নয় মনোগতও বটে।অশ্বপতির কথা শুনতে শুনতে দশরথের তনু মন রোমাঞ্চিত হল। সৃষ্ঠিতত্ত্বের এবং শরীরতত্তের এই, অদ্ভুত নিয়মটা সে জানত না বলে আশ্চর্য হল। অশ্বপতির কথা থেকে প্রথম অনুভব করল জীবনধারণ ও স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য যেমন ক্ষুধা নিবৃত্তির প্রয়োজন সে রকম প্রকৃতি তাব সৃষ্টি রক্ষার স্বার্থে জীবের মধ্যে যৌন আবেগের আকর্ষণকে He কবে তুলেছে। কিন্তু সব ভুলে যাওয়া, ডুবে যাওয়া আনন্দ আস্বাদনের মধ্যে AeA সৃষ্ঠির sata চেয়েও একটা দুর্লভ অব্যক্ত দৈহিক আনন্দ সুখ ও অনির্বচনীয় তৃপ্তি ও উত্তেজনা পাওয়ার জন্য মানুষ মিথুনাসন্ত হয়। এই প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতার আনন্দ CCS দশরথ নারী চেয়েছে এবং পেয়েছে। কিন্তু অশ্মপতি হঠাৎ তার সব হিসেব এবং ধ্যান জ্ঞান ওলোট-পালোট করে দিল। fears বিস্ময়ে দশননথ প্রশ্ন করল : মহান রাজা অশ্বপতি, আমার বিকল চিনত্ডের উৎস তা হলে নারী। নারীব মধুর সাহচর্য আমাকে সড়ানের জনক করবে, মনের কষ্ট লাঘব করে, আমায় পরিপূর্ণতা দেবে। উত্তবকালের বুকে আমার চিরচিহ্ন যে একে রাখবে তাকে কেমন করে পার আমি? metas কাছেই বা কিরকম সাহায্য প্রত্যাশা করতে পাবি?বলতে বলাতে widows দুই. চোখের দৃষ্টি দীপ্ত হল। মুখে খুশির ঝলক লাগল। ঠোটের কোণে বিচিত্র হাসির ধার তার বাক্তিত্বকে বিশিষ্ট করে তুলল। wee তৃষ্ণা তাব সংযম ভাসিয়ে দিল। কৈকেয়ীব মুগ্ধতা তাকে প্রগলভ কবল। নিজের সঙ্গে কৌতুক করে বলল : আঁখির কটাক্ষে মদনের মোহনধনুর নিশানা এখনও অব্যর্থ। পাহাড়ী aria উচ্ছল তারুণা আমার শরীরে ক্রীড়াচঞ্চল। বক্ষে আমার TS AYA প্রেমের GG! আমার রূপ মৌবনের কোন ঘাটতি নেই। এখনো দাদুনীর আচমকা ডাক্রে আমার হৃদয় উতলা হ্য। মুগ্ধতা প্রত্যাশার ক্ষেত্রে টেনে নিয়ে যায। আশা sre তৃষ্ণা বাড়িয়ে তোলে!দশরথের সারা se worst অভিবাক্তি। কথাগুলি অসংলগ্ন। প্রকাশের ভাষা প্রলাপের মতো। আনলে বিসেব এটা fants. অনতিক্রমনীয় বাধার মতো তার কণ্ঠরোধ করল। তাই এক চিত্ডিজ্ঞাসার কাছে সে Bead, বোলা।SPAS bets] চোখে তার সন্দেহ এবং wafer; মুখে আতঙ্কের ছায়া। ঘটনার



Leave a Comment