পুরোনো কথা [খণ্ড-২] | Purano Katha [Vol. 2]

বই থেকে নমুনা পাঠ্য (মেশিন অনুবাদিত)

(Click to expand)
পুরানো কথা ১১পিছু এক টাকা করে আমার এক কর্মচারী মেলামী নিয়েছিলেন। তা হলে বুঝুন রুবি-বিভাগের ঠিকাদার কি কাণ্ড করেছিল !অনেক সময় গভর্মমেন্টের এই ডিপাটমেণ্ট-ভেদের দরুণ নানা উৎপাত উপস্থিত eq আমর। শহরবাসী নিজেদিকে যত সভাই মনে করি না কেন, এটা তো অস্বীকার করা যায় না যে আমাদের দেশের লোক বলতে যার, তাঁদের বুদ্ধি primitive শিশুর মতন। একটি হাকিমকে দুঃখের কথা জানাতে পারলেই তারা খুশি | তারা কি এত বোঝে, রা্জস্ব-বিভাগ, কুষি-বিভাগ, পূর্ত-বিভাগ, স্বাস্থ্য-বিভাগ, শিক্ষা-বিভাগ ৷ ata otata সংবতে দুভিক্ষের প্রথম Ew হল, গভনমেণ্ট তো লালা সাহেবের কথায় কানই ছিলেন ন।। তার পর যখন relief ক্যাম্প আরম্ভ এবলেন, তখনো এমন WHA ধরে দিলেন যে তাতে একটা লোকের পেট ভরতে পরে না। সবচেয়ে ST হল যথন সেই আধপেট। মঙুরিও খানিকটা কেটে নেওয়া হতে লাগল জরিমানা বলে। আমি এমনও দেখেছি যে সপ্তাহের পর সপ্তাহ একটা ক্যাম্পের সমস্ত মজুরের জরিম।না হচ্ছে। ওভারসিয়াররা বলতেন, “THIS ভয়ানক কুঁড়ে । নইলে কাজ এত কিছু বেশি ধরে দেওয়া হয় নেই ।” Rie আমি বেশ নজর করে দেখতে লাগলাম, কিন্তু কুঁড়েমির লক্ষণ কিছুই ধরতে পারলাম না। শরীরের এ অবস্থায় ওর চেয়ে বেশি কাজ করা অসম্ভব | একদিন দেখি এক তলাওয়ে কুলির! সবাই শক্ত কালো এঁটেল মাটি কোপাচ্ছে, আর PW. া.র টিকিটে লেখা রয়েছে-- সাধারণ বালি-মাটি। আমি ওভরসিয়ারকে জিজ্ঞাসা করলাম, “এরকম জুলুম করছেন কেন মশায়।” তিনি হেসে উঠলেন, “স্তর, গুজরাতের সব ats যে ধরে নিতে হবে বালি-মাটি। এই আমাদের নিয়ম i” চমৎকার নিয়ম ৷! এর উপর আর কথা কি! কমিশনারকে জানালাম। কার্জন সাহেবের হুকুমে পরে এই গরিব বেচারাদের মজুরি কিছু বাড়ানো হল। এই আমাদের মস্ত ate! লাট কার্জন বাঙালী Bourgevisie-3 পরম শত্রু হলেও হৃদয়বান পুরুষ ছিলেন। অনেক ক্ষেত্রেই তার উদারতার পরিচয় দিয়ে গেছেন। এই সাহেবের গুজরা-পারণর্শনের দুটো] একটা গল্প করব । শোনা গল্প, কেননা আমার মতন সানান্ত লোক দূরে দুরেই ছিল।আহ্মদাবাদ ন্টেশনে লাট নামলে নগরশেঠ মণিভাই তাঁকে অভ্যর্থনা করলেন। লীলী সাহেব মণিভাইয়ের পরিচয় করিয়ে দিলেন। লাট-সাহে্বে



Leave a Comment